• শিরোনাম

    ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আ.লীগের ১৪ নেতাকর্মী বহিষ্কার

    | মঙ্গলবার, ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১

    ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আ.লীগের ১৪ নেতাকর্মী বহিষ্কার

    ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাহমুদুল হক ভূঁইয়াসহ তার সমর্থক জেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের ১৪ নেতাকর্মীকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। সেই সঙ্গে তাদের দলের সব পদ থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কারের জন্য কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের কাছে সুপারিশ পাঠিয়েছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগ। ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার নির্বাচনে দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে মেয়র পদে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় এবং শৃঙ্খলা ভঙ্গ করার অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

    রবিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) এ বিষয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এবং সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়। চিঠিটি দলীয় সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের কাছে পাঠানো হয়।

    চিঠিতে বলা হয়, আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার নির্বাচন। এতে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী, পৌরসভার বর্তমান মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নায়ার কবীরের মনোনয়ন প্রত্যাখ্যান করে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন জেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরী কমিটির সদস্য হাজী মাহমুদুল হক ভূঁইয়া।

    তার সমর্থনে জেলা আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক আলী আকবর, উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য আজিজুর রহমান বাচ্চু, জেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক ফরিদ উদ্দিন দুলাল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা আবু সিদ্দিক, শাহজাহান মিয়া, জেলা কৃষকলীগের সহ-সভাপতি জাকির হোসেন, প্রচার সম্পাদক সারোয়ার আলম, সদস্য আবুল কালাম,

    জেলা যুবলীগের সহ-প্রচার সম্পাদক শেখ শওকত হোসেন, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুদ রানা পান্না, যুবলীগ নেতা আল-আমিন দুলাল, গাজিউর রহমান ও আমিনুল ইসলাম মঞ্জু বিভিন্ন নির্বাচনি প্রচারে অংশগ্রহণ করছেন।

    এজন্য তাদের দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য ও শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে আওয়ামী লীগের সব পদ থেকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়। একই সঙ্গে দল থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কারের জন্য কেন্দ্রীয় কমিটিকে অনুরোধ করা হয়।

    এ ব্যাপারে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার বলেন, ‘তারা দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করেছেন, শৃঙ্খলা ভঙ্গ করেছেন। তাই তাদের স্থানীয়ভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে। সাংগঠনিক পদ ও প্রাথমিক সদস্য পদ থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কারের জন্য কেন্দ্রে সুপারিশ করা হয়েছে।’

    এ ব্যাপারে একাধিকবার চেষ্টা করেও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী মেয়র প্রার্থী মাহমুদুল হক ভূঁইয়ার সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

  • ফেসবুকে চিনাইরবার্তা.কম