• শিরোনাম

    প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা চান ক্যানসারে আক্রান্ত নাট্যকার

    | মঙ্গলবার, ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১

    প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা চান ক্যানসারে আক্রান্ত নাট্যকার

    দেশের খ্যাতিমান নাট্যকার ও অভিনেতা আজম খান মরণ ব্যাধি ক্যানসারে আক্রান্ত। তবে এখনো কোনো হাসপাতালে ভর্তি হননি। বর্তমানে ঢাকার ইস্কাটনের বাসায় চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী চলছেন। ইতোমধ্যে তিনি জাতীয় ক্যানসার গবেষণা ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের ক্যানসার বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক রুহুল আমিন, ডা. কামাল উদ্দিন ও ঢাকা মেডিকেল কলেজের একজন ক্যানসার বিশেষজ্ঞের সঙ্গে পরামর্শ করেছেন।

    ক্যানসারের জীবাণু ছড়িয়ে পড়ার মাত্রা নিশ্চিত হওয়ার পরই মূলত চিকিৎসা শুরু করতে পারবেন বলে জানিয়েছেন আজম খান। এই নাট্যকার বলেন, ‘শারীরিক অবস্থা আগের চেয়ে খারাপ। অনেকগুলো পরীক্ষা করানো হয়েছে। সব রিপোর্ট এখনো হাতে পাইনি। যে রিপোর্ট হাতে পেয়েছি তা দেখে চিকিৎসকরা নিশ্চিত করেছেন আমার গ্র্যান্ড ক্যানসার। কিন্তু ক্যানসারের জীবাণু শরীরের ঠিক কোথায় ছড়িয়েছে, তা নিশ্চিত হতে আরো পরীক্ষা করাতে হবে।’

    এই রোগের ব্যাপারে আগে থেকে কিছুই বুঝতে পারেননি বলে জানান আজম খান। তিনি বলেন, ‘ক্যানসার মনে হয় মানুষের অতীতের সব খোঁজ খবর নিয়ে আসে। এই যে এক সময় বৃষ্টি ভালো লাগতো না। কিন্তু এখন বৃষ্টিকেই আপন মনে হয়। রোদ অসহ্য লাগে। রোদ আমাকে আমার অক্ষমতার কথা মনে করিয়ে দেয়। বন্ধুরা আমাকে দেখতে এসেছিল। খুব মজাই করেছি। কিন্তু একটু পর চোখ ঝাপসা হয়ে আসে। ভেতরে একটা কষ্ট মোচড় দিয়ে উঠে।’

    তিনি বলেন, ‘ক্যানসার রোগীর কথা অনেকেই বিশ্বাস করে না। মরে যাওয়ার আগে রোগীরা মিথ্যা বলে না। আমিও কোনো মিথ্যা বলিনি। ক্যানসারের ভয়াবহ কষ্ট যে কত কঠিন হতে পারে, তা কেবল রোগীই জানে। বন্ধুরা ভালো থেকো, অনেক জ্বালা দিয়েছি, কষ্ট নিও না। আস্তে আস্তে শরীরটা জোর পাচ্ছি না। সবাই ভালো থাকুক।’

    এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি চিকিৎসা ব্যয় কতটা হবে। তবে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, সেই অংকটা মোটেও ছোট নয়। যা আজম খানের পরিবারের পক্ষে বহন করা অসম্ভব বলে জানানো হয়েছে। তাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আর্থিক সহায়তা কামনা করেছেন তিনি।

    ছাত্র জীবনে ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন আজম খান। তিনি ফেনী কলেজ ছাত্রলীগ শাখার ভিপি ও জিএস ছিলেন। সর্বশেষ যুবলীগ কনভেনশনের উপকমিটির সদস্য ছিলেন। বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বও পালন করছেন। দীর্ঘ ১৬ বছর চাকরি করেছেন দৈনিক জনকণ্ঠ পত্রিকায়।

    টেলিভিশন নাট্যকার সংঘের পুনঃপ্রতিষ্ঠা লগ্ন থেকে আজম খানের ভূমিকা অসামান্য। তিনি সবাইকে একত্রিত করে সংঘকে আরো গতিশীল করার চেষ্টা করেছেন সবসময়। বর্তমানে এই সংগঠনের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন আজম খান। পাশাপাশি তাকে লড়তে হচ্ছে মরণ-ব্যাধি ক্যানসারের সঙ্গে।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

  • ফেসবুকে চিনাইরবার্তা.কম