• শিরোনাম

    ইতালিতে ৯ মার্চের পর সর্বনিম্ন প্রাণহানি

    চিনাইরবার্তা.কম কমরেড খোন্দকার, ইউরোপ থেকেঃ | রবিবার, ১০ মে ২০২০

    ইতালিতে ৯ মার্চের পর সর্বনিম্ন প্রাণহানি

    করোনাভাইরাসে মৃত্যুপুরী ইতালিতে ৯ মার্চের পর সর্বনিম্ন প্রাণহানি হয়েছে। রবিবার ১০ মে করোনাভাইরাসে প্রাণহানি হয়েছে ১৬৫ জন, এর আগে সর্বনিম্ন সংখ্যা ছিল গত ৯ মার্চ ৯৭ জন। এদিকে আক্রান্তের সংখ্যাও ছিলো গত ১০ মার্চের পর সর্বনিম্ন। এদিন আক্রান্তের সংখ্যা হাজারের নিচে নেমেছে। রবিবার নতুন আক্রান্ত ৮০২ জন। ১০ মার্চ এ সংখ্যা ছিলো ৫২৯ জন। প্রতিদিনই মৃত্যুর মিছিল, কয়েক শত মানুষের প্রাণহানি। গত দুই মাসের বেশি সময় ধরে এই দৃশ্য দেখছে ইতালির মানুষ। মৃতের এবং আক্রান্তে সংখ্যা কমে আসায় কিছুটা আশা দেখছে ইউরোপের এই দেশটির বাসিন্দারা।

    রবিবার সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে দুই হাজার ১৫৫ জল। এনিয়ে মোট মৃত্যুবরণ করেছে ৩০ হাজার ৫৬০ জন। দেশটিতে গুরুতর অসুস্থ রোগীর সংখ্যা কমতে শুরু করেছে। গুরুতর অসুস্থ রোগীর সংখ্যা ১ হাজার ২৭ জন । মোট চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা ৮৩ হাজার ৩২৪ জন এবং দেশটিতে মোট আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দুই লাখ ১৯ হাজার ৭০ জন বলে জানিয়েছেন নাগরিক সুরক্ষা সংস্থা।

    দেশটির সুরক্ষা দিতে সরকার করোনা মোকাবিলায় সর্বোচ্চ চেষ্টা চালাচ্ছে বলেও তারা জানান। ফলে এ পর্যন্ত চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে এক লাখ পাঁচ হাজার ১৮৬ জন। ইতালিতে করোনাভাইরাসে সুস্থের হার শতকরা ৪৮.০১ ভাগ এবং মৃত্যুর হার ১৩.৯৫ ভাগ। মৃত্যুর হার বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় ইতালিতে অনেক বেশি।

    এদিকে রবিবার ইতালির মিলানের বাসিন্দা ২৩ বছর বয়সি সিলভিয়া রোমানা দীর্ঘ ১৮ মাস পরে ঘরে ফিরেছে। গত ২০ নভেম্বর ২০১৮ সালে কেনিয়া থেকে অপহৃত হয়। একটি বিশেষ বিমানে সিলভিয়া ইতালিতে এসে পৌঁছালে পররাষ্ট্রমন্ত্রী দি মাইয়ো তাকে বিমান বন্দরে দেখতে যান। সিলভিয়াকে কেনিয়া থেকে মুক্ত করে আনায় তার পরিবার দেশটির রাষ্ট্রপতি সেরজো মাতারেল্লা এবং প্রধানমন্ত্রী জোসেপ্পে কন্তের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

  • ফেসবুকে চিনাইরবার্তা.কম